রবিবার
১লা আগস্ট ২০২১
City News Banner

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের তিব্বত সফর

দুর্বল দেশগুলোকে আর্থিক সহায়তার আহ্বান পরিবেশমন্ত্রীর

ম্যাচ ও সিরিজ সেরা সৌম্য সরকার

City News Banner
সর্বশেষ

Loading...

রাত জাগলেই মারাত্মক ক্ষতি!

Untitled-2
দি ইউনিভার্সিটি অফ হংকং’য়ের করা একটি গবেষণায় দেখা গেছে যারা নিয়মিত রাত জেগে অফিস করেন তাদের পর্যাপ্ত ঘুম হয় না। এছাড়াও নানা প্রয়োজনে প্রায় সবাইকে কখনও না কখনও রাত জাগতেই হয়। রাত জাগায় অভ্যস্ত হয়ে ওঠলেও এর বেশ কিছু নেতিবাচক দিক রয়েছে।

ঘুমের ঘাটতি আর নিয়মিত রাত জাগার কারণে দুর্বলতা, এদের ডিএনএ’তে পরিবর্তন ছাড়াও নানা জটিলতা দেখা দেয়। যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে ডেকে আনতে পারে ক্যান্সার, ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, স্নায়বিক ও শ্বাসতন্ত্রের নানান রোগ।

দ্য ইউনিভার্সিটি অফ হংকং’য়ের গবেষণা সহকারী এস.ডাব্লিউ.চই বলেন, “গবেষকরা ২৮ থেকে ৩৩ বছর বয়সি একদল স্বাস্থ্যবান চিকিৎসককে পর্যবেক্ষণ করেন গবেষকরা। প্রথমে তিন দিন পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমানোর পর প্রত্যেকের রক্তের নমুনা নেয়া হয়। এদের মধ্যে যেসব চিকিৎসক রাতের শিফটে কাজ করেন তাদের ওই রাতের শিফট শেষে ঘুমের ঘাটতি থাকা অবস্থায় আবারও রক্তের নমুনা নেয়া হয়।গবেষণা দেখা গেছে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটার সঙ্গে ডিএনএ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্পর্ক রয়েছে।”

নিচে আরও কিছু সমস্যার কথা তুলে ধরা হলো-

১. মানসিক সমস্যার আশঙ্কা : গবেষণায় দেখা গেছে যারা প্রায়ই রাত জাগেন তাদের উদ্বিগ্নতা, অবসাদ ও বাইপোলার ডিজঅর্ডারে ভোগার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। এমনকি রাতে না ঘুমানোর সঙ্গে আত্মহত্মার প্রবণতারও সম্পর্ক রয়েছে।

২. চেহারায় মলিনতা : নিয়মিত ত্বকের যত্ন নেয়ার পরও ব্রণ বা চোখের চারপাশে কালো দাগ হচ্ছে। এই একই কারণে অকালে চেহারায় বয়সের ছাপ ও ত্বক শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

৩. কর্মোদ্যম কমে যাওয়া : ডাক্তাররা বলেন, রাতে মানুষের ৬ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন। যেন দিনের বেলা দেহ ও মন কর্মক্ষম থাকতে পারে। 

৪. দেহ ঘড়িতে বিশৃঙ্খলা : মানবদেহ তার অভ্যন্তরীণ নানা কাজ দেহের নিজস্ব সময় অনুযায়ী চলে। যেমন, রাত ২টায় মানুষের ঘুম সবচেয়ে গভীর অবস্থায় থাকে। রাত জাগার ফলে দেহের নিজস্ব ঘড়িতে বিশৃঙ্খলা ও হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব ডায়াবেটিসের তথ্য মোতাবেক দুই লাখ আট হাজার তরুণ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত, যাদের বয়স ২০ বছরের কম। 

এজাজুর রহমান নামে এক তরুণ ডায়াবেটিস রোগীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তিনি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত, এটি ধরা পড়ে তিনি যখন বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষের ছাত্র। ঘুম নিয়েই বেশি অনিয়ম করতেন বলে জানান তিনি।

অবশেষে বলা যায়, বিবর্তনগতভাবেই রাত মানুষের ঘুমানোর জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত সময়। তাই প্রকৃতির বিরুদ্ধে না যাওয়াটাই মঙ্গল।

টিআর