নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের ফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন।

বুধবার (১৫ জুন) বিকেলে মোগড়াপাড়ার পাঁচপীর দরগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রিসাইডিং অফিসারের ওপর ইউপি সদস্য ও তাদের সমর্থকরা হামলা করেন। এসময় মারধর করা হয় প্রিসাইডিং অফিসার ফখরুল ইসলামকে। পরে তাকে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

হামলায় আহত প্রিসাইডিং অফিসার ফখরুল ইসলাম সোনারগাঁ উপজেলা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মোগড়াপাড়া ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে ২ হাজার ৯৬৪ ভোট রয়েছে। ভোট গণনার সময় দুই হাজার ৩০০ ভোটগ্রহণ করা হয়েছে বলে ঘোষণা দেন প্রিসাইডিং অফিসার। পরে ফল ঘোষণার সময় মাত্র ১২০০ ভোটের হিসাব দেখিয়ে প্রিসাইডিং অফিসার ভোটকেন্দ্র থেকে চলে আসতে চাইলে মেম্বার প্রার্থীদের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়।

এক পর্যায়ে মেম্বার প্রার্থী ও তাদের কর্মী সমর্থকরা একত্রিত হয়ে পুনরায় ভোট গণনার দাবি জানিয়ে প্রিসাইডিং অফিসার ফখরুল ইসলামকে মারধর করেন।

এ বিষয়ে সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, মারধরের ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এ ঘটনায় মেম্বার প্রার্থী আল মাহবুব ও তার ভাতিজা রাজুকে আটক করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত।


সাজেদ/