বাংলাদেশ সৃষ্টির পর প্রথম অর্থমন্ত্রী হিসেবে ১৯৭২-৭৩ অর্থবছরের জন্য বাংলাদেশের প্রথম বাজেট ঘোষণা করেছিলেন তাজউদ্দিন আহমেদ। সেই বাজেটের আকার ছিল মাত্র ৭৮৬ কোটি টাকা। আজ সেই বাংলাদেশের বার্ষিক বাজেটের আকার দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৭৮ জাহার ৬৪ কোটি টাকা (সম্ভাব্য)। অর্থমন্ত্রী হিসেবে এ সময় দায়িত্ব পালন করছেন আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বাংলাদেশের ১৩তম অর্থমন্ত্রী। মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, স্বাধীনতার এই ৫২ বছরের বাংলাদেশে এ পর্যন্ত ১২ জন অর্থমন্ত্রী দায়িত্ব নিয়ে এ বাজেট উপস্থাপন করেন। ৭৮৬ কোটি টাকা থেকে এর আকার এখন সম্ভাব্য ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকায় উন্নীত হয়েছে।

অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে পাওয়া স্বাধীনতা-পরবর্তী ১৯৭২-৭৩ অর্থবছর থেকে ২০২২-২৩ অর্থবছর পর্যন্ত দেওয়া বাজেটের পরিমাণ ও অর্থমন্ত্রীদের তথ্য নিচে দেওয়া হলো:

বঙ্গবন্ধুর শাসনামল: ১৯৭২-৭৩ অর্থবছরে অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদের সময়ে ৭৮৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়। ১৯৭৩-৭৪ অর্থবছরেও তাজউদ্দিন আহমেদ অর্থমন্ত্রী ছিলেন। এ সময় বাজেট ছিল ৯৯৫ কোটি টাকার। ১৯৭৪-৭৫ অর্থবছরে অর্থমন্ত্রী ছিলেন তাজউদ্দিন আহমেদ, বাজেট ছিল ১০৮৪.৩৭ কোটি টাকা।  

খন্দকার মোশতাকের শাসনামল: ১৯৭৫-৭৬ অর্থবছরে ড. আজিজুর রহমান ১৫৪৯.১৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন।

জিয়াউর রহমানের শাসনামল: ১৯৭৬-৭৭ অর্থবছরে মে. জে. জিয়াউর রহমান ১৯৮৯.৮৭ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ১৯৭৭-৭৮ অর্থবছরে লে. জে জিয়াউর রহমান ঘোষণা করেন ২ হাজার ১৮৪ কোটি টাকার বাজেট। ১৯৭৮-৭৯ অর্থবছরেও রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ২ হাজার ৪৯৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ১৯৭৯-৮০ অর্থবছরে ড. এম এন হুদা ৩ হাজার ৩১৭ কোটি ও ১৯৮০-৮১ অর্থবছরে ৪ হাজার ১০৮ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন এম সাইফুর রহমান। ১৯৮১-৮২ অর্থবছরেও এম সাইফুর রহমান ৪ হাজার ৬৭৭ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন।

এইচএম এরশাদের শাসনামল: ১৯৮২-৮৩ অর্থবছরে আবুল মাল আবদুল মুহিতের ঘোষণায় বাজেট ছিল ৪ হাজার ৭৩৮ কোটি টাকা। ১৯৮৩-৮৪ অর্থবছরেও আবুল মাল আবদুল মুহিত ৫ হাজার ৮৯৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ১৯৮৪-৮৫ অর্থবছরে এম সায়েদুজ্জামান ৬ হাজার ৬৯৯ কোটি এবং ১৯৮৫-৮৬ অর্থবচরে এম সায়েদুজ্জামান ৭ হাজার ১৩৮ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ১৯৮৬-৮৭ অর্থবছরে এম সায়েদুজ্জামান ৮ হাজার ৫০৪ কোটি টাকা, ১৯৮৭-৮৮ অর্থবছরে এম সায়েদুজ্জামান ৮ হাজার ৫২৭ কোটি টাকা, ১৯৮৮-৮৯ অর্থবছরে মেজর জেনারেল (অব.) মুনিম ১০ হাজার ৫৬৫ কোটি টাকা, ১৯৮৯-৯০ অর্থবছরে ড. ওয়াহিদুল হক ১২ হাজার ৭০৩ কোটি টাকা, ১৯৯০-৯১ অর্থবছরে মেজর জেনারেল (অব.) মুনিম ১২ হাজার ৯৬০ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন।

খালেদা জিয়ার শাসনামল: ১৯৯১-৯২ অর্থবছরে এম সাইফুর রহমান ১৫ হাজার ৫৮৪ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ১৯৯২-৯৩ অর্থবছরে এম সাইফুর রহমান ১৭ হাজার ৬০৭ কোটি টাকা, ১৯৯৩-৯৪ অর্থবছরে এম সাইফুর রহমান ১৯ হাজার ৫০ কোটি টাকা, ১৯৯৪-৯৫ অর্থবছরে এম সাইফুর রহমান ২০ হাজার ৯৪৮ কোটি টাকা এবং ১৯৯৫-৯৬ অর্থবচরে এম সাইফুর রহমান ২৩ হাজার ১৭০ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন।  

শেখ হাসিনার শাসনামল: ১৯৯৬-৯৭ অর্থবছরে এসএএমএস কিবরিয়া ২ লাখ ৪ হাজার ৬০৩ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ১৯৯৭-৯৮ অর্থবছরে এসএএমএস কিবরিয়া ২৭ হাজার ৭৮৬ কোটি টাকা, ১৯৯৭-৯৮ অর্থবছরে এসএএমএস কিবরিয়া ২৭ হাজার ৭৮৬ কোটি টাকা, ১৯৯৮-৯৯ অর্থবছরে এসএএমএস কিবরিয়া ২৯ হাজার ৫৩৭ কোটি টাকা, ১৯৯৯-২০০০ অর্থবছরে এসএএমএস কিবরিয়া ৩ লাখ ৪ হাজার ২৫২ কোটি টাকা, ২০০০-০১ অর্থবছরে এসএএমএস কিবরিয়া ৩৮ হাজার ৫২৪ কোটি টাকা এবং ২০০১-০২ অর্থবছরে এসএএমএস কিবরিয়া ৪ লাখ ২ হাজার ৩০৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন।  

খালেদা জিয়ার শাসনামল: ২০০২-০৩ অর্থবছরে এম সাইফুর রহমান ৪ লাখ ৪ হাজার ৮৫৪ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ২০০৩-০৪ অর্থবছরে এম সাইফুর রহমান ৫১ হাজার ৯৮০ কোটি টাকা,  ২০০৪-০৫ অর্থবচরে এম সাইফুর রহমান ৫৭ হাজার ২৪৮ কোটি টাকা, ২০০৫-০৬ অর্থবছরে এম সাইফুর রহমান ৬ লাখ ১ হাজার ৫৮ কোটি টাকা এবং ২০০৬-০৭ অর্থবছরে এম সাইফুর রহমান ৬ লাখ ৯ হাজার ৭৪০ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন।

ফখরুদ্দিন আহমেদের শাসনামল: ২০০৭-০৮ অর্থবছরে মির্জা আজিজুল ইসলাম ৮৭ হাজার ১৩৭ কোটি টাকা এবং ২০০৮-০৯ অর্থবছরে মির্জা আজিজুল ইসলাম ৯৯ হাজার ৯৬২ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন।

শেখ হাসিনার শাসনামল: ২০০৯-১০ অর্থবছরে আবুল মাল আব্দুল মুহিত ১ লাখ ১৩ হাজার ৮১৫ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ২০১০-১১ অর্থবছরে আবুল মাল আব্দুল মুহিত ১ লাখ ৩২ হাজার ১৭০ কোটি টাকা, ২০১১-১২ অর্থবছরে আবুল মাল আব্দুল মুহিত ১ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকা, ২০১২-১৩ অর্থবছরে আবুল মাল আব্দুল মুহিত ১ লাখ ৯১ হাজার ৭৩৮ কোটি টাকা, ২০১৩-১৪ অর্থবছরে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২ লাখ ২২ হাজার ৪৯১ কোটি টাকা, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে আবুল মাল আবদুল মুহিত ২ লাখ ৫০ হাজার ৫০৬ কোটি টাকা, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে আবুল মাল আবদুল মুহিত ৩ লাখ ১০০ কোটি টাকা, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে আবুল মাল আবদুল মুহিত ৩ লাখ ৪০ হাজার ৭৩৫ কোটি টাকা, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে আবুল মাল আবদুল মুহিত সম্ভাব্য ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকা, ২০১৮-১৯ আবুল মাল আবদুল মুহিত ৪ লাখ ৬৩ হাজার ৫৭৩ কোটি, ২০১৯-২০ অর্থবছরে আ হ ম মুস্তফা কামাল ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি, ২০২০-২১ অর্থবছরে আ হ ম মুস্তফা কামাল ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি এবং ২০২১-২২ অর্থবছরে আ হ ম মুস্তফা কামাল ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। ২০২২-২৩ অর্থবছরে আ হ ম মুস্তফা কামালের সম্ভাব্য ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণার কথা রয়েছে।

আরআই