অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে করা মামলার পলাতক আসামি প্রশান্ত কুমার হালদার (পি কে হালদার) দেশে ফিরতে চান। সোমবার (১৬ মে) মেডিক্যাল চেকআপের পর পশ্চিমবঙ্গে ইডি কার্যালয়ে প্রবেশের সময় তিনি সাংবাদিকদের কাছে দেশে ফেরার ইচ্ছার কথা জানান।

হেফাজতে থাকা আসামিদের প্রতি ২৪ ঘণ্টায় চেকআপ করা বাধ্যতামূলক। সেই নিয়ম অনুযায়ী আজ পি কে হালদারের মেডিক্যাল চেকআপ করা হয়।

ভারতে গ্রেফতারের পর তিনি এখন তিন দিনের রিমান্ডে আছেন। গ্রেফতারের পর থেকে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি দফায় দফায় কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন। তবে রবিবার প্রথম দিনের রিমান্ডের পর আজ সোমবার তিনি অনেকটা সামলে উঠেছেন। তার বিরুদ্ধে আনা সমস্ত অভিযোগ মিথ্যে বলে দাবি করেছেন। 

ইডি সূত্রে জানা গেছে, পি কে হালদারকে আজ দিনভর জেরা করা হবে। ইডি’র একাধিক কর্মকর্তা ইতোমধ্যে কার্যালয়ে হাজির হয়েছেন। 

পি কে হালদার এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ও রিলায়েন্স ফাইন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক। গত শনিবার তাকে ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের তদন্তকারী সংস্থা ইনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার অশোক নগরের একটি বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। ইডি জানিয়েছে, পি কে হালদার নাম পাল্টে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশে বসবাস করতেন। প্রদেশের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার অশোক নগরের একটি বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন তিনি। 

জেইউ/এএল