সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলা সদরের এমআরএ ক্লিনিকে জোড়া লাগানো দুই যমজ শিশুর জন্ম হয়েছে। শনিবার (১৪ মে) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে অপারেশনের মাধ্যমে দুই কন্যা শিশুর জন্ম হয়। বর্তমানে মা যমজ শিশু সুস্থ রয়েছে বলে জানিয়েছে চিকিৎসক।

উপজেলার ভুরুলিয়া ইউনিয়নের দেউলিয়া গ্রামের ফজর আলী তহুরা বেগম দম্পত্তির ঘরে জন্ম নেয় এই যমজ শিশু। ক্লিনিকে সিজারিয়ান অপারেশন করেন সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজের প্রভাষক ডা. আনিছুর রহমান শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. ফাতেমা ইদ্রিস ইভা।

ডা. আনিছুর রহমান জানান, যমজ দুই কন্যা শিশুর পেট জোড়া লাগানো রয়েছে। বর্তমানে মা শিশু উভয়ই সুস্থ রয়েছে। গর্ভে পরিপূর্ণ হওয়ার আগেই মায়ের গর্ভ ব্যথা আসায় সিজার করা হয়েছে। ৩৪ সপ্তাহে সিজার করে তাদের বের করা হলো। আরও দুই সপ্তাহ গর্ভে থাকলে বাচ্চা দুটি পরিপূর্ণ পুষ্ট হতো। তবুও তারা আশঙ্কামুক্ত অবস্থায় সুস্থ রয়েছে।

সদ্যজাত দুই শিশুর চাচা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘আমার ভাই ইটভাটায় শ্রমিকের কাজ করেন। বেলা ১১টার দিকে ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছিল। এরপর সিজারের মাধ্যমে দুই যমজ কন্যা শিশুর জন্ম হয়েছে। তাদের পেট জোড়া লাগানো। এখন তারা সুস্থ রয়েছে।’

 

এএমকে