নারীদের মাসে তিন দিন ঋতুকালীন ছুটি দেবার উদ্যোগ নিয়েছে স্প্যানিশ সরকার। স্পেনের সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, তিন দিনের ঋতুকালীন ছুটি মঞ্জুর করতে চলেছে স্পেন সরকার। 

আগামী সপ্তাহেই দেশটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ ঐতিহাসিক ছুটি মঞ্জুর করতে পারে। কারণ, এই প্রথম ইউরোপের কোনো দেশ ঋতুকালীন ছুটি মঞ্জুর করতে চলেছে।

জানা গিয়েছে, ঋতুকালীন ছুটির খসরায় বলা হয়েছে, ঋতুকালীন শারীরিক ও মানসিক সমস্যায় মহিলারা এই ছুটি নিতে পারবেন। ‘দ্য স্প্যানিশ গাইনোকোলজি অ্যান্ড অবস্টেট্রিক্স সোসাইটি’ জানিয়েছে, ঋতুস্রাব চলাকালীন এক তৃতীয়াংশ মহিলা তীব্র পেটের ব্যথায় ভোগেন। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় যাকে ‘ডিসমেনোরিয়া’ বলা হয়। এ ক্ষেত্রে পেট ব্যথা, মাথায় যন্ত্রণা, ডায়রিয়া, এমনকী জ্বরের উপসর্গও দেখা দেয়। অনেক মহিলা ঋতুস্রাব-পূর্ব ব্যথাতেও ভোগেন। এই বিষয়গুলি মাথায় রেখেই ঋতুকালীন ছুটির কথা ভেবেছে স্পেন সরকার।

দেশটি প্রত্যেক স্কুলে স্যানিটারি ন্যাপকিন রাখার ব্যবস্থা বাধ্যতামূলক করতে চলেছে। স্যানিটারি ন্যাপকিন ও ট্যাম্পেনের কর কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। এ ছাড়াও আর্থিকভাব দুর্বলদের বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন ও ট্যাম্পেন দেওয়া হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

উল্লেখ্য, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, ইন্দোনেশিয়া ইতোমধ্যে সরকারি তরফে ঋতুকালীন ছুটি মঞ্জুর করেছে। আমেরিকার বেশ কিছু সংস্থাও মহিলা কর্মীদের ঋতুকালীন ছুটি মঞ্জুর করে থাকে। ইউরোপের দেশ হিসেবে স্পেনই প্রথম এই ছুটি আনতে চলেছে। 

এইচএ /এএল