চীনের পশ্চিমাঞ্চলে উড্ডয়নের সময় তিব্বত এয়ারলাইন্সের যাত্রীবাহী একটি বিমানে আগুন ধরে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৪০ যাত্রী আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় উড্ডয়নের ঠিক আগ মুহূর্তে অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। এ সময় প্লেনটিতে ১১৩ জন যাত্রী ও ৯ জন ক্রু ছিলেন।

চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় চংকিং থেকে তিব্বতের নাংচি-এ রওনা হয়েছিল বিমানটি। তিব্বত এয়ারলাইন্স চীনের রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী এয়ার চায়না লিমিটেডের সাবসিডিয়ারি ক্যারিয়ার। 

খবরে বলা হয়েছে, চংকিং জিংবি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টারমার্কে এয়ারবাস এসই এ৩১৯ মডেলের প্লেনটিতে উড্ডয়নের ঠিক আগে আগুন ধরে। আগুনে এর সামনের অংশ পুড়ে গেছে। এ সময় যাত্রীরা ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে দ্রুত বেরিয়ে আসার সময় অন্তত ৪০ জন আহত হন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য নিকটস্থ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অগ্নকাণ্ডের ঘটনার পর বিমাবন্দরের রানওয়ে বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ।

এ ঘটনায় এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ দুঃখ প্রকাশ করে জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত করা হবে। আর এয়ারবাসটি সাড়ে ৯ বছর ধরে বহরে যুক্ত রয়েছে।

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বলেছে, প্রথমে প্লেনটির বাম দিক থেকে প্রথমে আগুনের সূত্রপাত হয়। যা পরে সামনের অংশে ছড়িয়ে পড়ে। 

মাত্র দুই মাসেরও কম সময় আগে গত মার্চে চায়না ইস্টার্ন এয়ারলাইন্স করপোরেশনের একটি প্লেন বিধ্বস্ত হয়ে ১৩২ আরোহী সবার মৃত্যু হয়।

এইচএ /এএল