কক্সবাজারে খেলাধুলার সামগ্রী নিয়ে হাজির পিএসজি। রোহিঙ্গা ক্যাম্পের শিশুদের জন্য উপহার পাঠিয়েছে মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেদের ক্লাবটি। সেই সুন্দর মুহূর্তগুলো শোভা পাচ্ছে পিএসজির অফিশিয়াল ফেসবুক পেইজে।

মেসিভক্তদের পিএসজি নিয়েও আছে উন্মাদনা, নেইমার-এমবাপ্পেদের ক্লাবটির প্রতি আছে ভালোবাসা। সেই ক্লাবটিই এবার তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে শেয়ার করেছে একটি ভিডিও। যেখানে জুড়ে আছে বাংলাদেশের নাম। 

কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বসবাসরত শিশুদের খেলার মাঠে আনতে পাশে দাঁড়িয়েছে পিএসজি। দাতব্য প্রতিষ্ঠান ক্লাব ও জাতিসংঘের রিফিউজি এজেন্সি ইউএনএইচসিআরের কোলাবরেশনে, রোহিঙ্গা শিশুদের উপহার দিয়েছে খেলাধুলার সামগ্রী।

গেল মার্চ থেকে বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্প ঘুরে বেড়িয়েছে পিএসজির লোগো সম্বলিত একটি গাড়ি, এটা গাড়ি নয় যেন আলাদ্দীনের জাদুর চেরাগ ছোট ছোট শিশুরা খেলার জন্য যা চাইছে তাই বেরিয়ে আসছে ভেতর থেকে বিভিন্নরকম বল, জার্সি আর জুতা।

শুধু উপহারেই শেষ হয়নি পিএসজির ভালোবাসা, ফুটবল, ব্যাডমিন্টন, ক্রিকেট, বাস্কেটবল খেলাও আয়োজন হয়েছে, দেয়া হয়েছে প্রশিক্ষণ। স্কুলে স্কুলে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েরাও খেলেছে ফুটবল-ক্রিকেটসহ আরও কত খেলা।

গত বছরই বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে খেলাধুলা নিয়ে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছিল পিএসজি। মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেরা রোহিঙ্গা শিশুদের শয়নে স্বপনে তাদের কাছ থেকে দেখতে না পারলেও, তাদের পাঠানো উপহার কয়েক লাখ শিশুর মুখে হাসি ফুটিয়েছে।

জীবনের সঙ্গে প্রতিনিয়ত যুদ্ধ করে বেরুনো এ সব শিশু হয়তো একদিন স্বপ্ন দেখবেন মেসি, নেইমার হওয়ার।

এইচএ/এএল