আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নিত্যপণ্যের বাজার নিয়ে বিএনপি নেতারা বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দিচ্ছে। তাদের লাগাতার মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‌‘প্রায় এক দশক ধরে তথাকথিত গণঅভ্যুত্থান সংঘটিত করার নামে সরকার পতনের কথা বলে আসছে বিএনপি নেতারা। ২০০১ থেকে ২০০৬ সালের মতো আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ভয়ংকর পরিণতির হুমকি দিচ্ছে! তাদের এটা ফাঁকা আওয়াজ ছাড়া আর কিছু নয়। বাংলার জনগণ তাদের দূরভিসন্ধিমূলক ফাঁকা আওয়াজে বিভ্রান্ত হয় না এবং কোনো দিন হবেও না।

তিনি বলেন, ‘বিশ্ববাজারে মূল্যবৃদ্ধির কারণে বাংলাদেশের বাজারেও এর বিরূপ প্রভাব পড়েছে। তবে বাজারের এই সংকট থাকবে না এবং অল্প সময়ের মধ্যেই দ্রব্যমূল্য পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হবো। ছাড়াও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ আন্তর্জাতিক অঙ্গনের নানা টানাপোড়েন নিষেধাজ্ঞার ফলে বিশ্ববাজারে অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধি ঘটেছে। অন্যান্য দেশের মতো যার বিরূপ প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের বাজারেও। সেই সঙ্গে রয়েছে অসাধু মহলের ষড়যন্ত্র মুনাফা লোভী মজুদদারগোষ্ঠীর অপতৎপরতা।

তিনি আরও বলেন, ‌‘সরকার পতনের চক্রান্ত বাস্তবায়নে বিএনপি নেতারা দেশের অভ্যন্তরে এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশবিরোধী জনগণের স্বার্থ পরিপন্থী নানামুখী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকায় দেশের জনগণ তাদের চূড়ান্তভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ যুদ্ধাপরাধীদের পৃষ্ঠপোষকতা, অর্থ পাচার, এতিমের টাকা আত্মসাৎ, একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা, সিরিজ বোমা হামলা, সংখ্যালঘু নির্যাতন, হত্যা-ক্যু-ধর্ষণের রাজত্ব কায়েম, ধ্বংসাত্মক রাজনীতি অগ্নিসন্ত্রাসের কারণে বিএনপির বিরুদ্ধে জনগণ ব্যালট রায়ের মাধ্যমে বার বার নিরব অভ্যুত্থান সংঘটিত করেছে।

এনএম