মঙ্গলবার   ১০:০১ অপরাহ্ন
১৮ই জানুয়ারি, ২০২২  |  ৫ই মাঘ, ১৪২৮  |  ১৫ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪৩ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
লগইন
সর্বশেষ

Loading...

‘নীলফামারীর জোড়া শিশুদের আলাদা করা সম্ভব নয়’

‘নীলফামারীর জোড়া শিশুদের করা সম্ভব নয়’

‘নীলফামারীর জোড়া শিশুদের করা সম্ভব নয়’

নীলফামারীর জলঢাকার যদুনাথপুর গ্রামের জোড়া শিশু লামিসা-লাবিবার আংশিক অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। কিন্তু এখনই তাদের পুরোপুরি আলাদা করা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে এসব জানান চিকিৎসকরা।

এর আগে সকালে হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. মো. আশরাফ-উল হক কাজলের নেতৃত্বে বিভাগের সমন্বয়ে ৩০-৩৫ জন বিশেষজ্ঞ জোড়া শিশুদের অপারেশন করেন।

জোড়া শিশুর যখন দিন বয়স তখন তারা রংপুর মেডিকেল থেকে ঢাকা মেডিকেলে আসে। প্রায় দেড় মাস ভর্তি ছিল। এর মধ্যে তাদের পায়ুপথে অস্ত্রোপচার হয়। পেট দিয়ে মলত্যাগের ব্যবস্থা করা হয়। এর পর তাদের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়। করোনাভাইরাসের কারণে দুজনের অস্ত্রোপচার করা সম্ভব হয়নি। চলতি বছরের ২৮ অক্টোবর আবারও তাদের ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নীলফামারীর জেলার জলঢাকা উপজেলার যদুনাথপাড়া গ্রামের দিনমজুর লাল মিয়া মনুফা আক্তার দম্পতির ঘরে প্রথমবার ভূমিষ্ঠ হয় জোড়া লাগা দুই কন্যাসন্তান।

২০১৯ সালের ১৫ এপ্রিলে তারা জন্ম নেয়। ২৮ অক্টোবর থেকে চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রয়েছে আড়াই বছরের লাবিবা লামিসা।

নূর/ডা