মঙ্গলবার   ১০:০১ অপরাহ্ন
১৮ই জানুয়ারি, ২০২২  |  ৫ই মাঘ, ১৪২৮  |  ১৫ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪৩ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
লগইন
সর্বশেষ

Loading...

স্ত্রী-সন্তানকে গলা কেটে হত্যা, পালানোর সময় স্বামী আটক

স্ত্রী-সন্তানকে গলাকেটে হত্যা, পালানোর সময় স্বামী আটক

স্ত্রী-সন্তানকে গলাকেটে হত্যা, পালানোর সময় স্বামী আটক

পারিবারিক বিরোধের জেরে নরসিংদীতে স্ত্রী শিশু সন্তানকে গলা কেটে হত্যা করেছেন ফখরুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি। ঘটনায় সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) সকালে তাকে আটক করেছে পুলিশ।

এর আগে রোববার (১২ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ৩টার দিকে চিনিশপুর ইউনিয়নের ঘোড়াদিয়া এলাকা থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহত গৃহবধূর নাম রেশমি আক্তার তার শিশু সন্তান মো. সালমান। শিশুটির বয়স ১৩ মাস।

পুলিশ নিহতের স্বজনরা জানান, প্রায় দুই বছর আগে পারিবারিকভাবে নরসিংদী শহরের দত্তপাড়া এলাকার রেশমি আক্তারের সঙ্গে নরসিংদী সদর উপজেলার চিনিশপুর ইউনিয়নের ঘোড়াদিয়া এলাকার সাইফুল্লার ছেলে ফখরুল ইসলামের সঙ্গে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামীকে নিয়ে শ্বশুর-শাশুড়ির সঙ্গে ঝগড়া-বিবাদ লেগে থাকত স্ত্রী রেশমি আক্তারের।

বিয়ের পর চাকরি না থাকায় ছেলে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে এমন অভিযোগে ছেলে ফখরুলকে রিহ্যাবে দেয় তার বাবা-মা। পরে স্ত্রীর আবদারে তাকে রিহ্যাব থেকে বাড়িতে নিয়ে আসে। পরে রোববার রাতে স্ত্রী শিশু সন্তানকে নির্মমভাবে হত্যা করে পালিয়ে যেতে চাইলে এলাকাবাসী ফখরুলকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে।

নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান জানান, রাতেই নিহত গৃহবধূ শিশুর মরদেহ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। আটককৃত ফখরুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

নূর/ডা