শনিবার   ০২:১২ পূর্বাহ্ন
৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১  |  ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮  |  ২৯শে রবিউস-সানি, ১৪৪৩ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
লগইন
সর্বশেষ

Loading...

ধামরাইয়ে চাঞ্চল্যকর নছর হত্যা মামলার ৩ আসামি গ্রেফতার

গ্রেফতারকৃত আসামিরা

গ্রেফতারকৃত আসামিরা

ঢাকার ধামরাইয়ে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে চাঞ্চল্যকর নছর উদ্দিন হত্যা মামলার পলাতক তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪ এর একটি আভিযানিক দল। রোববার (২১ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাব-৪, সিপিসি-২ এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার রাকিব মাহমুদ খান।

এর আগে, শনিবার (২০ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৭টার দিকে মানিকগঞ্জের সিংগাইরের পৌরসভা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলো- ঢাকার ধামরাইয়ের সুয়াপুর ইউনিয়নের গোলাম মোস্তফা (৩৯), রাশেদ মোল্লা (৩৮) ও নাঈম হোসেন মোল্লা (১৯)।

র‌্যাব জানায়, ধামরাইয়ের সুয়াপুর ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মিজানুরের কর্মী দেলোয়ার হোসেনের সঙ্গে অন্য মেম্বার প্রার্থী গোলাম মোস্তফাসহ অন্য আসামিদের জমিসংক্রান্ত পূর্বশত্রুতা ও বিরোধ চলে আসছিল। এর জেরে গত ১১ নভেম্বর নির্বাচনের দিন নির্বাচন শেষে রাত সাড়ে ৯টার দিকে নছর উদ্দিনের ছেলে দেলোয়ারসহ আরও কয়েকজন নিজবাড়িতে যাওয়ার সময় কুরুঙ্গী মসজিদের পাশের রাস্তায় আসামিরা তাদের অন্যান্য সহযোগীসহ পূর্বপরিকল্পিতভাবে বাঁশের লাঠি, লোহার রড, দা ছ্যানা, রামদা চাপাতিসহ মারাত্মক দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে গতিরোধ করে অতর্কিত আক্রমণ করে। আসামিদের আক্রমণের একপর্যায়ে চিৎকার শুনে ভিকটিম নছর উদ্দিন মোল্লা ঘটনাস্থলে এলে ওই আসামিরা ক্ষিপ্ত হয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে বুকে সজোরে লাথি মারে। এতে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরবর্তীতে ভিকটিমের ছেলে বাদী হয়ে ধামরাই থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। হত্যার পরপরই আসামিরা আত্মগোপনে চলে যায়। পরে আসামিদের গ্রেফতারে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে র‌্যাব-৪।

র‌্যাব আরও জানায়, এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত কয়েকজন আসামি মানিকগঞ্জের সিংগাইর এলাকায় আত্মগোপনে রয়েছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার সন্ধ্যায় সিংগাইর পৌরসভা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে এই মামলার এজাহার নামীয় তিন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-৪, সিপিসি-২এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার রাকিব মাহমুদ খান জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামিরা ওই হত্যার সঙ্গে জড়িত বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছে। বিবাদীর সঙ্গে আসামিদের জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে এই হত্যাকাণ্ড হয়েছে বলে জানা যায়।

গ্রেফতার আসামিদের ধামরাই থানায় হস্তান্তর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন। হত্যার সঙ্গে জড়িত অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারে র‌্যাবের অভিযান চলমান রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এস/এম. জামান