শনিবার   ০২:১২ পূর্বাহ্ন
৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১  |  ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮  |  ২৯শে রবিউস-সানি, ১৪৪৩ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
লগইন
সর্বশেষ

Loading...

নারী-পুরুষের মধ্যে কার বেশি ঘুম দরকার?

নারী-পুরুষের মধ্যে কার বেশি ঘুম দরকার

নারী-পুরুষের মধ্যে কার বেশি ঘুম দরকার

পরিমিত আনন্দদায়ক ঘুমই হলো সুস্থ জীবনের নির্দেশক। একজন মানুষের বেঁচে থাকার জন্যে, সুস্থ থাকার জন্যে যেমন ভালো খাবারের প্রয়োজন, তেমনি প্রয়োজন দুশ্চিন্তামুক্ত গভীর ঘুমের। আপনি কতটা ভালো আছেন, তৃপ্তিতে আছেন তা বোঝা যাবে, আপনার ঘুম ভালো হচ্ছে কিনা তা দেখে।

একদিন রাতে ঠিকমতো ঘুম না হলে পুরো দিনটাই খারাপ কাটে। কোনো কাজে ঠিকভাবে মনোযোগ দেয়া যায় না, অনেক জরুরি কাজে ভুল হওয়ার আশঙ্কা থাকে। সঙ্গে মেজাজ থাকে খিটখিটে, ক্লান্তি আরও কত কি সমস্যা হয়, শুধু কম ঘুমের জন্য।

সকালে ঘুম থেকে কে আগে আর কে পরে ওঠেন সেটি নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে লড়াই নতুন নয়। মানুষের সুস্থ থাকতে সাধারণত আট ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন। তবে নতুন এক গবেষণায় বলা হচ্ছে, পুরুষের থেকে নারীদের বেশি ঘুম প্রয়োজন। তাই যদি কোনো নারী পুরুষের থেকে বেশি ঘুমান, তাহলে বুঝতে হবে তার ঘুম আসলেই প্রয়োজন।

ইংল্যান্ডের এক বিজ্ঞানী জিম হর্নে মনে করেন, পুরুষের চেয়ে নারীদের অন্তত ২০ মিনিট বেশি ঘুমানো প্রয়োজন। এর কারণ হচ্ছে, সারা দিনের কাজ।

সাধারণত নারীরা পুরুষের চেয়ে বেশি কাজ করেন। তারা সারা দিনই ঘরে কোনো না কোনো কাজ করতেই থাকেন। ফলে শক্তিক্ষয় বেশি হয়। ঘরের পাশাপাশি অনেকেই বাইরেও কাজ করেন। ফলে অনেক সময় দেখা যায়, তারা দিনের একটা বড় অংশ ব্যয় করেন কাজে।

সে কারণে শক্তি খরচ বেশি হয়। তাই ঘুমানোর ক্ষেত্রেও তাদের কিছুটা বেশি ঘুম প্রয়োজন বলে মনে করেন হর্নে। এমনকি অন্তঃসত্ত্বা নারীদের ক্ষেত্রেও ঘুম বেশি প্রয়োজন বলে জানান তিনি।

বিষয়টি নিয়ে এর আগেই একটি গবেষণা হয়েছে। ‘আমেরিকান সোশিওলজিক্যাল রিভিউ-এ ২০১৩-তে প্রকাশিত এক গবেষণাপত্রেও পুরুষের চেয়ে নারীর ঘুম বেশি প্রয়োজন বলে দাবি করা হয়েছিল।

অবশ্য এই হিসাবটা সব সময় সব নারীর ক্ষেত্রে খাটে না বলেও গবেষণায় বলা হয়।

এস/এএমকে/ডাকুয়া