শনিবার   ০১:১০ পূর্বাহ্ন
২৩শে অক্টোবর, ২০২১  |  ৮ই কার্তিক, ১৪২৮  |  ১৭ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
লগইন
সর্বশেষ

Loading...

চুলের যত্নে কিছু ‘জাদুকরী’ টিপস

চুলের যত্নে কিছু ‘জাদুকরি’ টিপস

চুলের যত্নে কিছু ‘জাদুকরি’ টিপস

বর্ষা এলে গরমের তাপদাহ থেকে হাঁফ ছেড়ে বাঁচে সবাই, কিন্তু সেই সঙ্গে এই মৌসুমে কীভাবে চুলের যত্ন নেবে তা নিয়ে দুশ্চিন্তাও চলে আসে সবার মনে। বৃষ্টির দিনে স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়ায় চুল অনেকটা নিস্তেজ হয়ে পড়ে। কাজের ব্যস্ততার জন্য পার্লারে যাওয়ার সময়ও মেলে না অনেকের। তাই এই মৌসুমে ঘরে বসেই নিন চুলের বিশেষ যত্ন। দেখে নিন বর্ষায় চুলের যত্ন নেওয়ার বেশ কিছু টিপস।

* যাদের চুল তৈলাক্ত বৃষ্টির দিনে তাদের চুল আরও বেশি তৈলাক্ত দেখায়। ঠাণ্ডা আবহাওয়ায় চুল দেরি করে শুকায় বলে চুল নেতিয়ে থাকে। সে ক্ষেত্রে শ্যাম্পু করার পর পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে চুলে দিলে চুলে বিশেষ উজ্জ্বলতা আসবে। পাশাপাশি চুলের গোড়ায় ইনফেকশনও হবে না, কমবে চুলকানি ভাবও। লেবুর পরিবর্তে ভিনেগারও ব্যবহার করতে পারেন।

* চুলে খুশকি থাকলে নিমপাতার পেস্ট করে এর সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে চুলের গোড়ায় লাগিয়ে প্রায় আধা ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে। সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন ঘরে তৈরি এই প্যাক ব্যবহারে খুব দ্রুত উপকার পাবেন।

* চুল যদি নিস্তেজ প্রাণহীন হয়ে থাকে তখন পাকা পেঁপে হতে পারে এর ভালো সমাধান। খোসা ছাড়িয়ে পেঁপে ব্লেন্ড করে নিন। এর সঙ্গে আধা কাপ টকদই মিশিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে চুলের গোড়ায় লাগিয়ে রাখুন আধা ঘণ্টার জন্য। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

* চুল অনেকক্ষণ ধরে ভেজা থাকে বলে আঁচড়ানোর সময় অনেক চুল পড়ে। এক্ষেত্রে যাদের অনেক বেশি চুল পড়ে আর খুশকি সমস্যা আছে তাদের জন্য মেথি খুব উপকারী। সারা রাত মেথি পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। সকালে ভেজানো মেথি ভালো করে পেস্ট করে চুলে আধা ঘণ্টার জন্য লাগিয়ে রাখতে হবে। চুল ধোয়ার পর পরিবর্তন নিজেই টের পাবেন।

* যাদের চুল পাতলা বর্ষা মৌসুমে তারা চুলের বিশেষ যত্ন নিতে পারেন পাকা কলা দিয়ে। কলা ভালোভাবে ব্লেন্ড করে এর সঙ্গে তিন টেবিল চামচ মেয়োনিজ এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। প্যাকটি ৪৫ মিনিট চুলে লাগিয়ে রাখতে হবে। পরে শ্যাম্পু দিয়ে ভালো করে চুল ধুয়ে ফেলুন।

* বর্ষা মৌসুমে চুল এমনিতেই তেল তেলে হয়ে থাকে। তাই সময় চুলে খুব বেশি একটা তেল ব্যবহার করা উটিত নয়। সময় সপ্তাহে এক দিন শ্যাম্পু করার ঘণ্টা আগে অলিভ অয়েল বা নারিকেল তেলের সঙ্গে তিলের বীজ মিশিয়ে কুসুম গরম করে তুলোয় ভিজিয়ে চুলের গোড়ায় লাগাতে হবে

* গাঁদা ফুল চুলের জন্য অনেক উপকারী। একটি বড় বাটিতে কুসুম গরম পানিতে তাজা গাঁদা ফুল ভিজিয়ে রাখতে হবে। তারপর সেই পানি থেকে ফুলগুলো উঠিয়ে পানিটি ঘণ্টা আলাদা করে রাখতে হবে। শ্যাম্পু করার পর এই পানি দিয়ে চুল ধুলে তৈলাক্ত চুলের ক্ষেত্রে অনেক উপকার পাওয়া যাবে।

* দুই টেবিল চামচ অলিভ অয়েল এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি চুলের জন্য একটি ভালো প্যাক তৈরি করা যায়। প্যাকটি কুসুম গরম করে চুলে লাগিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। কিন্তু প্যাকটি চুলের গোড়ায় লাগানো যাবেনা। শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই দেখবেন চুল হয়ে উঠেছে আকর্ষণীয় সুন্দর।

তারিক/এম. জামান