শুক্রবার   ০৬:০৯ পূর্বাহ্ন
১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১  |  ২রা আশ্বিন, ১৪২৮  |  ১০ই সফর, ১৪৪৩ পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
লগইন
সর্বশেষ

Loading...

পুঁজিবাজারে সূচক ও বাজার মূলধনে রেকর্ড

পুঁজিবাজারে সূচক ও বাজার মূলধনে রেকর্ড

পুঁজিবাজারে সূচক ও বাজার মূলধনে রেকর্ড

বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফেরায় ইতিবাচক রয়েছে দেশের পুঁজিবাজার। প্রতি সপ্তাহেই নতুন নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করছে সূচক বাজার মূলধনে। বিদায়ী সপ্তাহে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক হাজার ২০০ পয়েন্টের এবং বাজার মূলধন সাড়ে ২২ হাজার কোটি টাকা বেড়ে লাখ ৮৬ হাজার কোটি টাকার মাইলফলক স্পর্শ করেছে। 

একই সঙ্গে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক মূল্য সূচক ২১ হাজার পয়েন্ট অতিক্রম করেছে। বিদায়ী সপ্তাহে পুঁজিবাজারে ১৪ হাজার ৩৫৮ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে ডিএসইতে ১৩ হাজার ৮৮৮ কোটি এবং সিএসইতে ৪৬৮ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। ডিএসই সিএসই সূত্রে তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ১৩ হাজার ৮৮৮ কোটি ১৮ লাখ ২৪ হাজার ৬৮৬ টাকার লেনদেন হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল আট হাজার ৯৩৬ কোটি ৮৯ লাখ ৫৪ হাজার ৩৪৮ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন চার হাজার ৯৫১ কোটি ২৮ লাখ ৭০ হাজার ৩৩৮ টাকা বা ৫৫ শতাংশ বেড়েছে।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৭৭ পয়েন্ট বা দশমিক ৯৮ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে সাত হাজার ২৫৮ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৮৩ পয়েন্ট বা দশমিক ৫৪ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৫০ পয়েন্ট দশমিক শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৫৯২ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৬৪৭ পয়েন্টে। ডিএসইর তিনটি সূচকই সেপ্টেম্বর নতুন করে রেকর্ড গড়েছে।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরুর আগে ডিএসইতে বাজার মূলধন ছিল লাখ ৬৩ হাজার ৭১৫ কোটি ৬৪ লাখ ২৩ হাজার টাকায়। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়ায় লাখ ৮৬ হাজার ৩১৮ কোটি ৯৫ লাখ ৬১ হাজার টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ২২ হাজার ৬০৩ কোটি ৩১ লাখ ৩৮ হাজার টাকা বাজার মূলধন বেড়েছে।

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৭৮টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ২১০টির, কমেছে ১৫৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৩টির শেয়ার ইউনিট দর।

সপ্তাহের শুরুতে ডিএসইর পিই ছিল ২০ দশমিক ২৫ পয়েন্টে। যা সপ্তাহ শেষে ২১ দশমিক ১৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে পিই রেশিও শূন্য দশমিক ৯১ পয়েন্ট বা দশমিক ৪৯ শতাংশ বেড়েছে।

বিদায়ী সপ্তাহে লেনদেনের শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, লাফার্জ হোলসিম বাংলাদেশ, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, ডরিন পাওয়ার, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবলস এবং শাহজীবাজার পাওয়ার।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বিদায়ী সপ্তাহে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৪৬৮ কোটি ১৩ লাখ ৯১ হাজার ৩৭৪ টাকার। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৩৪১ কোটি ৭০ লাখ ৬৩ হাজার ৪৫৮ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ১২৬ কোটি ৪৩ লাখ ২৭ হাজার ৯১৬ টাকা বা ৩৭ শতাংশ বেড়েছে।

সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৮০৩ দশমিক ২১ পয়েন্ট বা দশমিক ৯৫ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১ হাজার ১৩১ দশমিক ৩৮ পয়েন্টে। যা সিএএসপিআই সূচকটি ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে।

সপ্তাহজুড়ে সিএসইতে ৩৪৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৮৭টির দর বেড়েছে, ১৪১টির কমেছে এবং ১৫টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

শামীম/এম. জামান